আমাকে বলা হচ্ছে চোখ মারার রানী: প্রিয়া

[ad_1]

প্রিয়া প্রকাশ ওয়ারিয়ারের প্রথম অভিনীত সিনেমার একটি ভিডিও ক্লিপ সম্প্রতি সোশাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। ঠোঁট চাপা হাসি, ভ্রু যুগলের নাচন ও আর চোখ মেরেই কুপোকাত করেছেন কোটি পুরুষের হৃদয়। প্রিয়া এখন শুধু ভারতেই নয়, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আলোচিতদের একজন। এরইমধ্যে ভুরি ভুরি ছবির প্রস্তাব আসছে তার কাছে। স্থানীয়, জাতীয় গণমাধ্যমগুলোর পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোও প্রিয়ার সাক্ষাৎকার নিতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে।

প্রিয়া প্রকাশ ওয়ারিয়র বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, এটা রাতারাতি ঘটে গেছে। সত্যিই রাতারাতি হয়ে গেছে এটা। আমরা ভেবেছি এটা কেরালাতে (ভারতের একটি রাজ্য) একটি ট্রেন্ড তৈরি করবে। কিন্তু এটি নিয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়েও এত মাতামাতি হতে পারে তা আমরা কখনো ভাবিনি।

প্রিয়া আরো বলেন, সবাই চোখ মারা নিয়ে বেশি কথা বলছে। আমাকে বলা হচ্ছে চোখ মারার রানী। বর্তমানে মানুষ যা বলতে চায় তা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে, ফোনে বলে। স্মাইলি (বিভিন্ন ধরনের আইকন দিয়ে অভিব্যক্তি প্রকাশ করা) ব্যবহার করে। ব্যক্তিগতভাবে এটা কম করে। কিন্তু ভিডিওতে আমি নিজে এটা করে দেখিয়েছি। তাই এটা সবাই পছন্দ করেছে।

কিন্তু এ বিষয়টি নিয়ে এতোটা মাতামাতি হতে হবে তা ভাবতেই পারেননি প্রিয়া।

কিশোর প্রেমের কাহিনীর ওপর ভিত্তি করে মালায়লাম ভাষায় নির্মিত এই সিনেমাটির নাম ‘ওরু আদার লাভ’ যেখানে প্রিয়া প্রকাশ ওয়ারিয়ার একজন ছাত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

‘সোশাল মিডিয়া যদি না থাকতো তাহলে আমার এই ভিডিওটা এরকম ভাইরাল হতো না। লোকজন এই ভিডিওটির কথা হয়তো জানতেও পারত না, -বলেন তিনি।

তবে এই ঘটনায় প্রিয়া খুব খুশি। কারণ এই ভিডিওটির মাধ্যমে সারা বিশ্বের লোকজন ভারতের আঞ্চলিক ছবি সম্পর্কে কিছুটা হলেও জানতে পেরেছে।

প্রিয়া বলেন- ‘যখনই ভারতীয় ছবির কথা বলা হয়- তখন সবার মনে হয় বলিউডের কথা। কিন্তু বলিউডের বাইরেও আরো বহু সিনেমার বড় বড় শিল্প আছে- মালায়লাম, তেলেগু, তামিল, কান্নাডা। সেখানে অনেক ভালো ভালো সিনেমাও হয়।’

প্রিয়া অভিনীত ‘ওরু আদার লাভ’ ছবিটি এ বছরের শেষের দিকে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

[ad_2]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here