কিউবায় উড়োজাহাজ বিধ্বস্তে শতাধিক যাত্রী নিহত

[ad_1]

কিউবার রাজধানী হাভানায় একটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্তের ঘটনায় শতাধিক যাত্রীবাহী নিহত হয়েছেন।দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এ খবর নিশ্চিত করেছে। শুক্রবার কিউবার হোসে মার্টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উড্ডয়নের পরপরই রাষ্ট্রায়াত্ত বিমান পরিবহন সংস্থা কিউবানার বোয়িং-৭৩৭ উড়োজাহাজটি দুর্ঘটনায় পড়ে।

উড়োজাহাজটিতে ১০৪ জন যাত্রী ছিলেন। নয়জন বিদেশি ক্রু ফ্লাইট পরিচালনা করছিলেন।
কিউবার প্রেসিডেন্ট মিগুয়েল ডিয়াজ-ক্যানেল দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে বলেন, দুর্ভাগ্যজনক একটি বিমান দুর্ঘটনা ঘটেছে। অনেক বেশি প্রাণহানির আশঙ্কা রয়েছে।

উড়োজাহাজটি অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে হাভানা থেকে ওলগিনে শহরে যাচ্ছিল। উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরই নিচে নেমে আসতে থাকে এবং বিধ্বস্ত হয়ে আগুন ধরে যায়।

সংবাদ সংস্থা বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান পরিবহন সংস্থা কিউবানা ডি এভিয়েশন এর বোয়িং ৭৩৭ উড়োজাহাজ হাভানার হোসে মার্তি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের পরপরই বিধ্বস্ত হয়। এ সময় সেখানে বিস্ফোরণ ঘটে। কিউবান কমিউনিস্ট পার্টি পরিচালিত সংবাদপত্র- গ্রানমা জানিয়েছে, দুর্ঘটনায় তিনজন ব্যক্তিকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তাদের অবস্থা খুবই সংকটজনক।

স্থানীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, তিনজন যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তাদের অবস্তা আশঙ্কজনক। অভ্যন্তরীণ রুটে চলাচল করা এই উড়োজাহাজ দেশটির পূর্বাঞ্চলের ওলগিন শহরে যাচ্ছিলো।

ঘটনার পরপরই বিমানবন্দরে ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। দুর্ঘটনার পর কিছু উদ্ধারকর্মী ও অ্যাম্বুলেন্স ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে।

এদিকে গত মাসে দেশটির প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেয়া মিগেল দিয়াস-কানেল ঘটনাস্থলে গেছেন। তিনি এ ঘটনায় বহু হতাহতের আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। দুর্ঘটনা কবলিত বোয়িং ৭৩৭-৪০০ উড়োজাহাজটি ২৬ বছরের পুরনো। এটি মেক্সিক্যান একটি কোম্পানি থেকে ইজারা নিয়ে চালাতো রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানটি।

[ad_2]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here