চৌহালীর সেই নির্মাণাধীন বাঁধে আবার ধস

মাজেদুল ইসলাম

সিরাজগঞ্জের চৌহালীতে যমুনা নদী তীর সংরক্ষণ বাঁধে আবারো ধস নেমেছে। মঙ্গলবার সকালে চৌহালী উপজেলার খাসকাউলিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পশ্চিম পাশে বাঁধটির প্রায় ২৫ মিটার অংশ ধসে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়।

এদিকে ১০ দিনের ব্যবধানে একই এলাকায় দ্বিতীয়বারের মতো ধস দেখা দেয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
খাস কাউলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শহিদ হোসেন জানান, ২০১৫ সালে যমুনা নদীর ভাঙন থেকে টাঙ্গাইলের নাগরপুর ও চৌহালী রক্ষায় ১০৯ কোটি টাকা ব্যয়ে ৭ কিলোমিটার নদী তীর সংরক্ষণ কাজ শুরু হয়। বাঁধটির প্রায় ৯৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এ অবস্থায় চলতি বছর ২ মে প্রথম ধস নামে। এরপর ১৬ মে, ৮ ও ২৩ জুন ৩, ৭, ১৯, ২০, ২১ ও ২৩ জুলাই প্রকল্পটির বিভিন্ন অংশ ধসে পড়ে। খাস কাউলিয়া এলাকায় অন্তত ৩০ মিটার আবারও ধস দেখা দেয়। এতে স্থানীয়দের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। পাউবো’র গাফিলতির কারণে বার বার পাড় ধসে পড়ছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

চৌহালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আনিসুর রহমান জানান, খাস কাউলিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের পশ্চিমে প্রায় ২৫ মিটার এলাকা ধসে গেছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।
টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শাহজাহান সিরাজ জানান, ইতোমধ্যে তারা অবহিত হয়েছেন। ধসের পরিধি ঠেকাতে কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ।

এদিকে গতবছর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১৫বার এমন ভাঙনে পুরো বাঁধ এখন বিপর্যস্ত। নতুন করে আবার ভাঙনে অকার্যকর মাটি নিচে ফেলে ব্লক দেয়াসহ পাথরের চারপাশে ফাঁকা স্থানগুলো সিমেন্ট দিয়ে পূর্ণ করে না দেয়ায় পানি ঢুকে ও স্রোতে সরে এই ধস দেখা দিয়েছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here