দূতাবাসের সহযোগিতায় ২৮ বছর পর দেশে ফিরছেন সিলেটের আবু সামা।

যমুনা ডেস্ক :

0
89

ফিলিস্তিনিদের জন্য যুদ্ধ গিয়ে ২৮ বছর পর লেবানন থেকে দেশে ফিরছেন এক বাংলাদেশি। নিপীড়িত ফিলিস্তিনিদের সহায়তা করতে আশির দশকে দেশ ছাড়েন তিনি।

বৈরুতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার শুক্রবার সাংবাদিকদের বলেন, যাচাই-বাছাইয়ের পর আবু সামা নামের ওই বাংলাদেশিকে তার জেলা মৌলভীবাজারে ফিরতে ট্রাভেল ডকুমেন্ট দিয়েছেন তারা।

দূতাবাসের পক্ষ থেকে তাকে একটি বিমান টিকেটও দেয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, টিকেট নিতে আজকে উনি এসেছিলেন। রোববার বিকালে দেশের উদ্দেশে লেবানন ছাড়বেন তিনি। সোমবার সকাল ১০টায় ঢাকা পৌঁছাবেন।

রাষ্ট্রদূত গত মাসে বিশেষ ব্যবস্থায় বাংলাদেশিদের দেশে ফেরার সুযোগ দেয়ার উদ্যোগ নিলে দূতাবাসে যোগাযোগ করেন সামা।

আগামী নভেম্বর ও ডিসেম্বরে দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফায় এই সুযোগ পাবেন সেখানকার অবৈধ বাংলাদেশিরা।

আব্দুল মোতালেব জানান, ফিলিস্তিন যুদ্ধের জন্য আশির দশকে প্রথম দেশ ছাড়েন আবু সামা। ছয় বা সাত বছর পর দেশে ফেরেন তিনি। এরপর আবার এসে আর কখনও দেশে যাননি।

এক ফেইসবুক পোস্টে রাষ্ট্রদূত লিখেছেন, তিনি ওই ব্যক্তির অনুভূতি বুঝতে চেয়েছিলেন।

‍‌‘তিনি শুধু আমার দিকে ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে ছিলেন। কিছু বলতে পারছিলেন না। আবু সামার আট সন্তান, তাদের পাঁচজন মেয়ে।’

এখন তাদের কাউকে কাউকে চেনেন তিনি। তার সব সন্তানই বিবাহিত। জীবিকার সন্ধানে দেশে ও দেশের বাইরে বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছেন তারা।

দুই বছর পর সত্তর বছরে পা দেবেন এই ফিলিস্তিনিদের হয়ে লড়াই করা বাংলাদেশি। আব্দুল মোতালেব সরকার বলেন, তার বাকি জীবন পরিবার পরিজনদের সঙ্গে সুখে ও শান্তিতে কাটুক- এ কামনা করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here