দেশের প্রেক্ষাগৃহে আজ মুক্তি পেয়েছে ‘চালবাজ’

[ad_1]

শাকিব খান ও শুভশ্রী গাঙ্গুলী অভিনীত সিনেমা ‘চালবাজ’। সিনেমাটি নিয়ে বেশ চালবাজি হয়েছে। শাকিব বিরোধীরা কোনোভাবেই চায়নি, বৈশাখে সিনেমাটি বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাক। কিন্তু সব বাধা পেরিয়ে অবশেষে বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে আজ শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে ‘চালবাজ’। সাফটা চুক্তির আওতায় ছবিটি এদেশে মুক্তি দেয়া হয়েছে।

ভারত থেকে আমদানি করা ‘চালবাজ’ সম্প্রতি বিনা কর্তনে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড থেকে ছাড়পত্র পায়। ছবিটি বাংলাদেশে আমদানি করেছে এন ইউ ট্রেডার্স। সাফটা চুক্তির আওতায় শাকিবের ‘চালবাজ’-এর বিনিময়ে বাংলাদেশের ছবি ‘অজান্তে ভালোবাসা’ কলকাতার প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

‘চালবাজ’ পরিচালনা করেছেন কলকাতার পরিচালক জয়দীপ মুখার্জী। প্রযোজনা করেছে সেদেশেরই এসকে মুভিজ। অ্যাকশন থ্রিলার এ ছবিতে শাকিব-শুভশ্রী ছাড়াও রয়েছেন রজতভ দত্ত, কাজী হায়াৎ, সৈয়দ হাসান ইমাম, সাগ্নিক, সুব্রত বড়ুয়া ও খরাজ মুখার্জীর মতো বাঘা বাঘা অভিনেতারা। নারী খলচরিত্রে রয়েছেন কলকাতার মডেল ও অভিনেত্রী মানসী সেনগুপ্ত।

শুটিং শুরুর সময় থেকে ‘চালবাজ’-কে যৌথ প্রযোজনার ছবি বলে প্রচার করা হয়েছিল। কিন্তু গত ৪ মার্চ ট্রেলার মুক্তির পর জানা যায় এটি কলকাতার এসকে মুভিজের একক ছবি। যৌথ প্রযোজনায় তৈরির অনুমতি দেয়া হলেও সঠিক নীতিমালা না মানার কারণে ‘চালবাজ’-এর চিত্রনাট্য পাস হয়নি বলে সে সময় জানিয়েছিলেন যৌথ প্রযোজনার প্রিভিউ কমিটির সদস্য ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার। যার কারণে পরে কলকাতার একক ছবি হয়ে যায় ‘চালবাজ’।

এর আগে গত ২০ এপ্রিল কলকাতায় মুক্তি পায় শাকিব খান ও শুভশ্রী গাঙ্গুলীর ‘চালবাজ’। ওই একই সময়ে বাংলাদেশেও ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নানা ঝামেলায় সেটা সম্ভব হয়নি। এ প্রসঙ্গে নায়ক শাকিব খান বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষ যেন আমার ছবি প্রেক্ষাগৃহে বসে দেখতে না পারেন, সেজন্য কে বা কারা এটির মুক্তিতে বাঁধা দেয়ার অনেক চেষ্টা করেছে। নানা বিভ্রান্তিমূলক কথাও ছড়িয়েছে। কিন্তু তারা সফল হয়নি। সেন্সর বোর্ডের সদস্যরা ছবিটি দেখে খুশি হয়েছেন। আশা করছি, দেশের মানুষও এটি পছন্দ করবেন।’

এটি বাংলাদেশি নায়ক শাকিব খান ও কলকাতার নায়িকা শুভশ্রী গাঙ্গুলী জুটির দ্বিতীয় ছবি। এর আগে ২০১৭ সালে ‘নবাব’ ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন তারা। সে ছবিটিও পরিচালনা করেছিলেন জয়দীপ মুখার্জী। ‘নবাব’ যৌথভাবে প্রযোজনা করেছিল বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়া ও ভারতের এসকে মুভিজ।

[ad_2]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here