নওশাবার ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

0
113


নিজস্ব প্রতিবেদক : ফেসবুক লাইভে গুজব ছড়ানোর মামলায় মডেল ও অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে ওই মামলায় রোববার বিকালে ঢাকা মহানগর হাকিম মাজহারুল হক এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে এ আসামির জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উত্তরা পশ্চিম থানার এসআই বিকাশ কুমার পাল এ আসামিকে আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

রিমান্ড শুনানিকালে আসামিকে আদালতের কাঠগড়ায় ওঠানো হয়। ওই সময় তাকে ভীত ও অশ্রুসিক্ত দেখা যায়।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, আসামি তার নিজের মোবাইল হতে নিজের ফেসবুক আইডিতে গত ৪ আগস্ট বেলা ৪টার দিকে উত্তরার ১৩ নং সেক্টরের ৪ নং রোডের ২ নং বাড়ী হতে অত্যন্ত আবেদনময়ী কণ্ঠে লাইভ ভিডিও সম্প্রচার করে বলেন, জিগাতলায় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে এক জনের চোখ উঠায়া ফেলছে আর ৪ জনকে মেরে ফেলছে। আপনারা যে যেখানে আছেন কিছু একটা করেন। তার এই আহ্বান মুহূর্তেও মধ্যে দেশি-বিদেশি সামাজিক ও ইলেকট্রনিক মাধ্যমে ভাইরাল হয় ফলে জনমনে আতঙ্ক ও বিদ্বেষ ছড়িয়ে পড়ে। বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীরা তার এই মিথ্যা প্রপ্রাগন্ডার উৎস জানার জন্য ফোন করলে সে তার স্বপক্ষে সঠিক কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারেননি। প্রকৃতপক্ষে ওই সময় জিগাতলায় ওই ধরনের কোনো ঘটনা ঘটে নাই। সে ইচ্ছাকৃতভাবে ও পূর্বপরিকল্পিতভাবে রাষ্ট্র ও রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার জন্য এবং জনসাধারণের অনুভূতিতে আঘাত করার জন্য এরূপ মিথ্যা ও মানহানিকর বক্তব্য প্রকাশ করে। সে কোনো কলেজ বা ভার্সিটির শিক্ষার্থী নয় এবং কোনো অভিভাবকও নয়। এ আসামি গত ২৯ জুলাই বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর থেকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সাথে সংহতি প্রকাশ করে ফেসবুকে বিভিন্ন স্ট্যাটাস প্রকাশ করে আসছে। এছাড়া সে গত ৩ আগস্ট আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মাঝে পানি বিতরণ করেন এবং বিভিন্নভাবে শিক্ষার্থীদের রাষ্টের বিরুদ্ধে উস্কে দেওয়ার চেষ্টা করেছে বলে স্বীকার করেছেন। এমতাবস্থায় এ আসামি কোন কোন ব্যক্তিদের প্ররোচনায় উক্ত মিথ্যা তথ্য ফেসবুক লাইভে প্রকাশ করে ভাইরাল করে সেকল তথ্য জানার জন্য আসামিকে ৭ দিন পুলিশ রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।

রিমান্ড শুনানিকালে আসামি পক্ষে রিমান্ড বাতিলপূর্বক জামিনের আবেদন করেন আইনজীবী এ এইচ ইমরুল কাউছার। তিনি বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের আন্দোলনটি কোনো রাজনৈতিক আন্দোলন নয়। প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে সবাই তাদের সাথে সহমত প্রকাশ করেছেন। এই আসামিও তাই। তিনি ঘটনার সময় শুটিংয়ে ছিলেন। ওই সময় জনৈক রুদ্র তাকে ফোন করে ওই তথ্য দেয়। তিনি সরল মনে তা প্রকাশ করে।

এই সময় বিচারক বলেন, তিনি তো খ্যাতনামা অভিনেত্রী, মডেল ও সমজের একজন সচেতন ব্যক্তি। তিনি কোনো কিছু যাচাই না করে কিভাবে এমনটি করলেন।

এই সময় আইনজীবী বলেন, তিনি তাৎক্ষণিকভাবে শুনে ইমোশনাল হয়ে কাজটি করেছেন। পরে ভুল বুঝতে পেরে ফেসবুকে ছেড়ে দিয়েছেন। আমরা তার রিমান্ড বাতিল পূর্বক জামিনের প্রার্থনা করছি। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে চারদিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

এর আগে শনিবার রাতে রাজধানীর উত্তরা থেকে নওশাবাকে আটক করে র‌্যাব। এরপর র‌্যাব-১ বাদী হয় মামলাটি করে।

The post নওশাবার ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর appeared first on hmnews24.com.



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here