নতুন বছরে আবারো বাড়ল স্বর্ণের দাম

[ad_1]
নতুন বছরের শুরুতেই দেশের বাজারে আবারো সব ধরনের স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়েছে। মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস) এ তথ্য জানিয়েছে। বুধবার থেকেএই নতুন দাম কার্যকর হবে। এই দাম বাড়ানোর ফলে ভরি প্রতি স্বর্ণ এখন ৫০ হাজার ছেড়ে গেছে।

প্রতি ভরি স্বর্ণে সর্বোচ্চ ১৪০০ টাকা পর্যন্ত বাড়িয়ে নতুন দাম নির্ধারণ করেছে বাজুস। আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম বৃদ্ধির কারণে দেশের বাজারে তা সমন্বয় করতে এ দাম বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা।

নতুন দাম অনুযায়ী, ভরিপ্রতি সর্বনিম্ন ৮৭৫ টাকা থেকে সর্বোচ্চ এক হাজার ৪০০ টাকা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। তবে অপরিবর্তিত রয়েছে রুপার দাম।

বাজুস জানায়, বর্ধিত দাম অনুযায়ী প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) ভালো মানের অর্থাৎ ২২ মানের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম পড়বে ৫০ হাজার ৭৩৮ টাকা। ২১ ক্যারেট ৪৮ হাজার ৪০৫ টাকা এবং ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ বিক্রি হবে ৪৩ হাজার ১৫৬ টাকায়। সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের ভরি বেড়ে দাঁড়াবে ২৬ হাজার ৫৩৫ টাকা। প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপা (ক্যাডমিয়াম) দাম নির্ধারণ করা হয়েছে এক হাজার ৫০ টাকা।

অর্থাৎআজ বুধবার থেকে দাম বাড়বে প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট স্বর্ণ এক হাজার ৪০০ টাকা, ২১ ক্যারেটে এক হাজার ২৮৪ টাকা, ১৮ ক্যারেটে এক হাজার ২৮৪ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণ ভরিতে বাড়বে ৮৭৫ টাকা।

সারাদেশের স্বর্ণের দোকানগুলোতে মঙ্গলবার পর্যন্ত ২২ ক্যারেটের মানের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম রয়েছে ৪৯ হাজার ৩৩৮ টাকা। ২১ ক্যারেট ৪৭ হাজার ১২২ টাকা, ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ ৪১ হাজার ৮৭২ টাকায় এবং সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের ভরি ২৫ হাজার ৬৬০ টাকা। আর প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপা (ক্যাডমিয়াম) দাম ১ হাজার ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজুসের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা জানান, স্বর্ণের দাম আন্তর্জাতিক বাজারে সঙ্গে ওঠানামা করে। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বেড়েছে। তাই বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় করতে দেশের বাজারেও দাম বাড়ানো সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাজুস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here