মুখে মৌমাছির পাল নিয়ে তরুণের গিনেস বুকে রেকর্ড!

যমুনা ডেস্ক :

0
82

মৌমাছির মাধ্যমে আমরা মধু পেয়ে থাকি কিন্তু এই পতঙ্গ অনেকের কাছে আবার আতঙ্কেরও। কারণ এর হূলে রয়েছে বিষ। তাই মৌমাছির চাক ভাঙতেও ভয় পান অনেকেই। কিন্তু এই পতঙ্গের পালকে চারঘন্টা মাথায় ও মুখে নিয়ে বসে থাকলেন এক যুবক। তার এই অনন্য কীর্তির রেকর্ড গিনেস বুকে স্থান পেয়েছে।

ঘটনাটি ভারতের কেরালা রাজ্যের। এখানকার নেচার এমএস নামের ওই তরুণ মুখ আর মাথায় মৌমাছির চাক নিয়ে বসেছিলেন ৪ ঘণ্টা ১০ মিনিট ৫ সেকেন্ড। তার এই কীর্তিতেই গিনেস বুকে উঠে যায় তার নাম।

ডেইলি মেইলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমএস বলেছেন, ‘মৌমাছি আমার প্রিয় বন্ধু। আমার ইচ্ছা অন্যরাও ওদের বন্ধু হোক। বাবার কাছে থেকেই মৌমাছির সঙ্গে ঘর করার কৌশল রপ্ত করেছি। সাত বছর বয়স থেকে ওদের মুখ ও মাথায় নিয়ে ঘুরে বেড়াই।’

সংবাদমাধ্যম সূত্রে আরও জানা যায়, এখন অনায়াসে ৬০ হাজার মৌমাছিকে মাথায় ও মুখে বসতে দিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন এই তরুণ। তার দাবি, ‘সমাজের বাস্তুতন্ত্র ঠিক রাখতে মৌমাছির ভূমিকা অসামান্য। এরা সমাজবদ্ধ জীবও বটে। তাই এদের সঙ্গে বন্ধুত্ব রেখে চললে আখেড়ে লাভ হবে মানুষের।’

দু’বছর আগে একইভাবে মৌমাছি সংরক্ষণ ও মধু চাষে সচেতনতা বাড়িয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন এমএস। এসব শিখেছেন তার বাবার কাছ থেকে। জানা যায়, এমএসের বাবা সূর্যকুমার একজন পুরস্কারপ্রাপ্ত মধু চাষী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here