যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু ১ লাখ ৩ হাজার ছাড়িয়েছে, সুস্থ ৫ লাখ

যমুনা ডেস্ক :

0
116

প্রাণঘাতি করোনায় বিধ্বস্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ইতিমধ্যে লাখ ছাড়িয়েছে প্রাণহানি। যা বিশ্বে একক কোন দেশে ভাইরাসটিতে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। দেশটিতে প্রতিদিনই আশঙ্কাজনকহারে বেড়েই চলেছে সংক্রমণ। যার শিকার দেশি-বিদেশি প্রায় পৌনে ১৮ লাখ মানুষ।

আক্রান্তের তুলনায় তাৎক্ষণিকভাবে সুস্থ হয়ে বেঁচে ফেরার সংখ্যা কম হলেও, প্রাণহানির চেয়ে অনেক বেশি। যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত আক্রান্তদের মধ্যে ১৭ শতাংশের মৃত্যু হয়েছে। আর সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরতে সক্ষম হচ্ছে ৮৩ শতাংশ মানুষই। যার সংখ্যা প্রায় ৫ লাখ।

এদিকে কার্যকরি ভ্যাকসিনের অভাবে দেশটিতে প্রতিদিনই অন্তত গড়ে ২০ হাজার মানুষ নতুন করে ভাইরাসটির শিকার হচ্ছেন, স্বজন হারাচ্ছেন অসংখ্য মানুষ। থমকে গেছে স্বাভাবিক জীবন ব্যবস্থা, হুমকির মুখে দেশটির অর্থনীতি।

বাংলাদেশ সময় আজ শুক্রবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়া করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণহানির তালিকায় যুক্ত হয়েছে আরও ১ হাজার ২২৫ জন। এতে করে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১ লাখ ৩ হাজার ৩৩০ জনে ঠেকেছে। নতুন করে শিকার হয়েছেন ২২ হাজার ৬৫৮ জন আমেরিকান। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৭ লাখ ৬৮ হাজার ৪৬১ জনে দাঁড়িয়েছে। আর সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন প্রায় ৪ লাখ ৯৮ হাজার ৭২৫ জন।

এর মধ্যে শুধু নিউইয়র্কেই প্রাণহানি ঘটেছে ২৯ হাজার ৬৫৩ জনের। আক্রান্ত পৌনে ৪ লাখ ছাড়িয়েছে। এরপরেই রয়েছে নিউ জার্সি। যেখানে ১ লাখ ৫৯ হাজারের বেশি মানুষ করোনার শিকার হয়েছেন। এর মধ্যে প্রাণ গেছে ১১ হাজার ৪১২ জনের।

ইলিনয়সে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ প্রায় ১৬ হাজার ছুঁই ছুঁই। যেখানে প্রাণহানি ৫ হাজার পেরিয়েছে। ক্যালিফোর্নিয়ায় লাখ ছাড়িয়েছে আক্রান্ত, প্রাণ গেছে প্রায় ৪ হাজারের বেশি মানুষের।

এদিকে, চলমান সংকটাবস্থাকে চীনের পক্ষ থেকে বিশ্বের জন্য সবচেয়ে বাজে উপহার হিসেবে মন্তব্য করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতির পুনরুদ্ধারের লকডাউন তুলে নেয়ার চিন্তা করছেন তিনি। এ জন্য সব অঙ্গরাজ্যগুলোর গর্ভনরকে চাপ দিয়ে আসছেন ট্রাম্প।

অন্যদিকে, চলতি সপ্তাহেই করোনাঘাতে যুক্তরাষ্ট্রের পরই টালমাটাল দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলের ওপর যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here