সালমান খানকে হত্যার পরিকল্পনা

বিনোদন ডেস্ক :

0
232

বলিউডে এখন চলছে নানামুখি সমস্যা। সুশান্ত সিং রাজপুত এর মৃত্যুর ঘটনায় কোনো গ্যাংস্টার দুনিয়ার সম্পর্ক আছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ হত্যায় মাফিয়া যোগ রয়েছে কিনা সেটা দেখা হচ্ছে। আর এর মধ্যেই বলিউডে আরো একটি ঘটনা স্পষ্ট করে দিল যে মুম্বইয়ের টিনসেল টাউনে নজর রয়েছে গ্যাংস্টার জগতের।

সম্প্রতি মুম্বইয়ের এক সংবাদমাধ্যম থেকে জানা গিয়েছে যে সালমান খানকে হত্যা করার ছক কষেছিল দুষ্কৃতীরা। এই করোনা আবহের মধ্যেই এমন পরিকল্পনা করেছিল তারা। জানা যাচ্ছে এই দুষ্কৃতীরা নিয়মিত সালমান খানের বান্দ্রার বাড়ির উপর নজর রাখত। সালমান বাড়ি থেকে কখন বেরোন বা আসেন সমস্ত কিছুই নখদর্পণে ছিল এই দুষ্কৃতীকারিদের। কিন্তু সেই পরিকল্পনা ধোপে টেকেনি। পুলিশের জালে পড়েছে দুষ্কৃতীকারিরা।

আর এই ঘটনার সঙ্গে গ্যাংস্টার লরেন্স বিসনই এর যোগ রয়েছে বলে পুলিশ এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। গত ১৫ আগস্ট একজন বন্দুকবাজকে গ্রেফতার করেছে ফরিদাবাদ পুলিশ। সেই বন্দুকবাজের নাম রাহুল।

ফরিদাবাদ পুলিশের ডিসিপি জানিয়েছেন যে, গত জানুয়ারি মাস থেকেই সালমান খানের উপর নজর রাখা হচ্ছিল। এবং গ্যাংস্টার লরেন্স অভিনেতার উপর নজর রাখতে বলেছিল রাহুলকে। সুযোগ বুঝে সালমানকে হত্যা করার নির্দেশ ছিল তার উপর। রাহুল ছাড়াও আরও চারজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

রাহুলের থেকে গুলি ভরা আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ এবং জানা গিয়েছে যে লরেন্স তাকে এই খুনের নির্দেশ দিয়েছিল। এর আগেও সালমান কে হত্যা করার পরিকল্পনার খবর প্রকাশ্য এসেছে। লরেন্সের সঙ্গে তার শত্রুতার খবরও বলিউডের অনেকেরই জানা।

প্রসঙ্গত লকডাউনে নিজের পানভেলের ফার্ম হাউসে ছিলেন সালমান খান। সেখানে চাষের কাজ করছিলেন তিনি। তার সঙ্গে সেই বাড়িতে ছিলেন জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ, ইউলিয়া ভান্তুর, সহ আরো অনেকে। জ্যাকলিনের সঙ্গে একটি মিউজিক ভিডিও করেন সলমন এই লকডাউনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here