সিংড়ায় নেশাগ্রস্থ চাচা হত্যা করলো ভাতিজীকে

সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি:

0
287
rpt_soft

নাটোরের সিংড়ায় রেশমি খাতুন (১৯) নামে এক কলেজ ছাত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে আপন চাচা।  রবিবার বেলা ৩টার দিকে সিংড়া উপজেলার ইটালী ইউনিয়নের দেওগাছা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় চাচা শাহাদৎ হোসেন (৩৫) কে আটক করে পুলিশের সোপর্দ করেছে এলাকাবাসীরা। কলেজছাত্রী রেশমি খাতুন স্থানীয় বামিহাল রহমত ইকবাল  অর্নাস কলেজের এইচএসসির মানবিক বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী এবং দেওগাছা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে।

পুলিশ ও এলাকাবাসীরা জানায়, উপজেলার পাকুরিয়া গ্রামে রেশমি খাতুনের দাদা মারা যায়। বাড়ির সবাই সেই জানাযা চলে যায়। এসময় রেশমি খাতুন বাড়িতে একাই ছিল।  এই সুযোগে আপন চাচা শাহাদৎ হোসেন ভাতিজী রেশমি খাতুনকে একা পেয়ে ধর্ষনের চেষ্টা করে মাটির ঘরের দোতালায় শ্বাস রুদ্ধ করে হত্যা করে ওরনা পেচিয়ে ঝুলে দেয়। বিকেলে স্কুল থেকে ফিরে রেশমির ছোট বোন ডাকাডাকি করে সাড়া না পেয়ে দোতালায় গিয়ে ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করে।পরে এলাকাবাসীরা চাচা শাহাদৎ হোসেনকে আটক করে পুলিশ খবর দেয়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।  আটক শাহাদৎ হোসেন মৃত মসলেম উদ্দিনের ছেলে। সংবাদ পেয়ে ইটালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম আরিফ, ইটালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক দেদার হায়াত ঘটনাস্থলে যান এবং পরিবারকে শান্তনা দেন। তবে পরিবারের অভিযোগ তাকে ধর্ষন করে হত্যা করা হয়েছে।

এদিকে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম জানান, রেশমি খাতুনকে শ্বাসরুধ করে হত্যা করা হয়েছে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে।  পরবর্তীতে তদন্ত করে ঘটনার রহস্য বেরিয়ে আসবে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here